কঠোর লকডাউনের দ্বিতীয় দিনেও নগর ফাঁকা

প্রকাশিত: ১২:৫৩ পূর্বাহ্ণ, জুলাই ৩, ২০২১

কঠোর লকডাউনের দ্বিতীয় দিনেও নগর ফাঁকা

বিজয়ের কণ্ঠ ডেস্ক
করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে সরকারের দেয়া কঠোর লকডাউনের দ্বিতীয় দিনেও সিলেট নগরের বেশির ভাগ রাস্তাই ফাঁকা ছিল। রাস্তায় ইঞ্জিন চালিত গাড়ি তেমন একটা চলতে দেখা যায়নি। মাঝে মধ্যে পণ্যবাহী দু’একটি গাড়ির দেখা মিললেও ব্যক্তিগত গাড়ি ছিল শূন্যের কোঠায়। তবে, নগরের সব রাস্তায়ই ছিল রিকশার দখলে।

 

এদিকে গ্রেপ্তার ও জরিমানা আতঙ্কসহ শুক্রবার দিন হওয়াতে নগরে মানুষের উপস্থিতি না থাকায় রিকশা চালকরা অলস সময় পার করছিলেন। এমন অবস্থায়ও কিন্তু অব্যাহত ছিল আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর টহল। আর নগরের মোড়ে মোড়ে চেকপোস্ট বসিয়েছে সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশ। মোট ১৬টি মোড়ে বসানো এসব চেকপোস্ট কাজ করছে যান চলাচল নিয়ন্ত্রণে। এমন অবস্থায় সড়কে যানবাহন নেই বললেই চলে।

 

শুক্রবার লকডাউনের দ্বিতীয় দিন সকাল থেকে নগরের সিলেটের প্রবেশদ্বার দক্ষিণ সুরমার অতির বাড়ি, কদমতলি, কুমারগাঁও ও বিমানবন্দর সড়কসহ নগরের গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে বসানো হয়েছে পুলিশের চেকপোস্ট।

 

এদিকে পুলিশের সাথে শুক্রবারও নগরে ছিল সেনাবাহিনী ও বিজিবির টহল। সেই সাথে চলে সচেতনতামূলক প্রচারণা ও জেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমাণ আদালত। সব মিলে লকডাউনের দ্বিতীয় দিনেও কড়াকড়ি অবস্থান অব্যাহত ছিল।

 

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ও মৃত্যু রোধে সরকার ঘোষিত সপ্তাহব্যাপী কঠোর বিধিনিষেধে সব ধরনের গণপরিবহন চলাচল বন্ধের নির্দেশনা জারি হয়। জরুরি পণ্য পরিবহনের সঙ্গে জড়িত যানবাহন, রোগী বহনের জন্য অ্যাম্বুলেন্স ছাড়া জরুরি প্রয়োজনে প্রাইভেটকারসহ কিছু সংখ্যক যানবাহন চলাচল করার অনুমতি রয়েছে। এবারের করোনাকালে রিকশা চলাচলের অনুমতি দেয়া হয়েছে।

  •  

সর্বশেষ ২৪ খবর