দৈনিক বিজয়র কণ্ঠ সম্পাদকের সাথে জিসাস ইউএই’র সৌজন্য সাক্ষাত

প্রকাশিত: ৩:১০ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২৬, ২০১৯

দৈনিক বিজয়র কণ্ঠ সম্পাদকের সাথে জিসাস ইউএই’র সৌজন্য সাক্ষাত

ডেস্ক প্রতিবেদন
দৈনিক বিজয়ের কণ্ঠ’র সম্পাদক ও প্রকাশক জে.এ কাজল খানের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাত করেছেন সংযুক্ত আরব আমিরাতস্থ জিয়া সাংস্কৃতিক সংগঠন (জিসাস ইউএই)’র নেতৃবৃন্দ।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় নেতৃবৃন্দ আবুধাবির ইলেক্ট্রারা আল ফারিজ রেস্টুরেন্টে কাজল খানের সাথে সৌজন্য সাক্ষাত করে তাঁকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান। পরে জিসাস ইউএই’র বিপ্লবী সভাপতি মো. জসিম উদ্দিনের সভাপতিত্বে এক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে জে.এ কাজল খান সকলকে ধন্যবাদ জানান এবং সারাবিশ্বে এক কোটিরও অধিক প্রবাসী সুদূর প্রবাসে নানা প্রতিকূলতার মধ্যেও প্রিয় মাতৃভূমির জন্যে অবদান রাখায় প্রবাসীদের প্রতি বাংলাদেশের ১৬ কোটি মানুষের প থেকে গভীর কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

তিনি বলেন, ৩০ লাখ শহীদের রক্তের বিনিময়ে অর্জিত আমাদের প্রাণের বাংলাদেশ। বাংলাদেশ এবং বাংলা শিল্প সংস্কৃতিকে বিশ্বের কাছে পরিচিত করতে আমাদের সবাইকে একসাথে মিলেমিশে কাজ করতে হবে। বাংলাদেশ বর্তমানে দণি এশিয়ার মধ্যে সবচেয়ে বেশি উদার ও বিনিয়োগ বান্ধব দেশ। গুরুত্বপূর্ণ ভূ-কৌশলগত অবস্থান ও দণি এশিয়ার মধ্যে সর্বনিম্ন শ্রম মজুরির কারণে সহজেই এ দেশে বিনিয়োগ করে লাভবান ও দেশের উন্নয়ে কাজ করা সম্ভব।

মিডিয়া কর্মীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, আপনারা যারা বিভিন্ন অনলাইন ও প্রিন্ট পত্রিকা বা টেলিভিশনে কাজ করেন, আপনাদের দায়িত্ব হচ্ছে সততার সাথে জনগণের মাঝে খবর পৌছানো ও জনগণকে উৎসাহী করা। পাশাপাশি আমরা যারা বিভিন্ন ব্যবসায়ী সংগঠনের প্রতিনিধিত্ব করি তাদের মনিটরিং করা। আমরা ঠিকভাবে কাজ করছি কিনা। আপনাদের পবিত্র এই দায়িত্ব আপনি আপনার জন্য পালন করবেন না, এই দায়িত্ব পালন করবেন আপনার আমার সন্তানের ভবিষ্যতের জন্য, এ দায়িত্ব আমাদের মাতৃভূমির জন্য। তিনি বলেন, অনেক রক্ত ও ত্যাগের বিনিময়ে অর্জিত আমাদের বাংলাদেশ। তাই আমাদের সমৃদ্ধি আমাদের সাধারন মানুষের স্বার্থে ব্যবহার করা অতি প্রয়োজন।

তিনি আরো বলেন, আমাদের সংঘবদ্ধ প্রক্রিয়ার মাধ্যমে দেশের উন্নয়ন করা সম্ভব। আমাদের পূর্ব পুরুষরা যুদ্ধ করে আমাদের একটি স্বাধীন দেশ উপহার দিয়েছেন। আমাদের পরবর্তী প্রজন্মের জন্য একটি “সুখী ও সমৃদ্ধ বাংলাদেশ” গঠনের ল্েয আমাদের আরো একটি য্দ্ধু করতে হবে। সেই যুদ্ধে যদি আমরা কিছু সংখ্যক যুদ্ধা মরে গিয়েও নতুন প্রজন্মের জন্য আধুনিক বাংলা উপহার দিতে পারি, তবেই জীবন স্বার্থক হবে।

মতবিনিময় সভায় জিসাসের সাধারণ সম্পাদক বদরুজ্জামান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক তোফায়েল, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জুবেল আহমদ, সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল খালিক, অর্থ সম্পাদক হাবিছ আহমদ, প্রচার সম্পাদক হোসেন আহমদ, সহ প্রচার সম্পাদক লোমান আহমদ ও অন্যান্য সদস্য/নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

সর্বশেষ ২৪ খবর