প্রধানমন্ত্রীকে মামলার তালিকা দিল বিএনপি

প্রকাশিত: ৪:২৭ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১৩, ২০১৮

প্রধানমন্ত্রীকে মামলার তালিকা দিল বিএনপি

ডেস্ক প্রতিবেদন
বিএনপি ও দলের অঙ্গসংগঠনের যেসব নেতাকর্মীদের নামে মামলা দেওয়া হয়েছে তাদের নামের তালিকা প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে জমা দিয়েছে বিএনপি। দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের স্বারিত তালিকাটি মঙ্গলবার বিকেলে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে জমা দিয়েছেন বিএনপির সহদপ্তর সম্পাদক তাইফুল ইসলাম টিপু।

প্রধানমন্ত্রীর পত্রগ্রহণ শাখা মামলার নথিসহ বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর স্বারিত পত্রটি গ্রহণ করেন কার্যালয়ের ব্যক্তিগত কর্মকর্তা রুহুল আমীন। এসময় বিএনপি চেয়ারপার্সনের প্রেস উইং কর্মকর্তা শামসুদ্দিন দিদার এবং মামলার তথ্য সংগ্রহকারী সালাহ উদ্দিন খান সঙ্গে ছিলেন।

এর আগে ৭ নভেম্বর প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত সচিব আব্দুল হামিদের কাছে আংশিক নামের তালিকায় জমা দেওয়া হয়।

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর স্বারিত ওই চিঠিতে বলা হয়েছে, গত ১ নভেম্বর জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের সঙ্গে আলোচানার সময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিএনপি নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে করা ডায়েরি ও মামলার তালিকা জমা দেওয়ার জন্য বলেন। এরই পরিপ্রেেিত- বিএনপি এবং দলটির অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলার দ্বিতীয় তালিকা পাঠানো হলো।

চিঠিতে যা বলা আছে: শুভেচ্ছা নেবেন। বিএনপির জাতীয় নেতারাসহ দেশব্যাপী জেলা, মহানগর, উপজেলা, থানা এমনকি ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড পর্যায়ের নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধেও ধারাবাহিকভাবে হাজার হাজার মিথ্যা, উদ্ভট, গায়েবি ও রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত মামলা দায়ের কর হচ্ছে যা গতকাল পর্যন্ত অব্যাহত আছে। গত ০১ সেপ্টেম্বর ২০১৮ থেকে সারা দেশব্যাপী আইন শৃঙ্খলা বাহিনী ব্যাপক হারে বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীদের মিথ্যা ও গায়েবী মামলা দিয়ে গ্রেপ্তারের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করছে এবং রিমান্ডে নিয়ে অকথ্য নির্যাতন করছে। এ ধরনের ন্যাক্কারজনক ও অমানবিক ঘটনা নিসন্দেহে গভীর উদ্বেগজনক।

এরই আলোকে দেশব্যাপী বিএনপি এবং অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলা উল্লেখপূর্বক আংশিক গত ০৬ নভেম্বর ২০১৮ প্রেরণ করা হয়। কিন্তু এখনও পর্যন্ত উক্ত তালিকার অভিযুক্তদের মামলা প্রত্যাহার ও তাদেরকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে কি না তা আমাদের জানা নেই। এবার মামলার দ্বিতীয় তালিকা প্রেরণ করা হলো। গায়েবি মিথ্যা মামলায় নেতাকর্মীদের গ্রেপ্তার ও হয়রানি বন্ধ করে এই সকল মামলা প্রত্যাহার করার জন্য অনুরোধ করা হলো। পরবর্তীতে এ সংক্রান্ত আরও তালিকা প্রেরণ করা হবে।

  •  

সর্বশেষ ২৪ খবর