মাস্ক না পরলে, স্বাস্থ্যবিধি না মানলে জরিমানা : স্বাস্থ্যমন্ত্রী

প্রকাশিত: ৬:১৫ অপরাহ্ণ, মার্চ ১৫, ২০২১

মাস্ক না পরলে, স্বাস্থ্যবিধি না মানলে জরিমানা : স্বাস্থ্যমন্ত্রী

বিজয়ের কণ্ঠ ডেস্ক
দেশে ফের করোনার সংক্রমণ দ্রুত বাড়তে থাকায় স্বাস্থ্যবিধি না মানলে জরিমানা করা হবে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। তিনি বলেছেন, মানুষ যাতে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলে, তা নিশ্চিত করতে আবারও ভ্রাম্যমাণ আদালত বসবে। মাস্ক না পরলে, স্বাস্থ্যবিধি না মানলে জরিমানা করা হবে। এ বিষয়ে জেলা পর্যায়ে কয়েকটি নির্দেশনা দিয়ে ইতোমধ্যে চিঠিও পাঠানো হয়েছে।

 

সোমবার সচিবালয়ে এক বৈঠক শেষে স্বাস্থ্যমন্ত্রী সাংবাদিকদের এ কথা বলেন।

 

জেলা পর্যায়ে নির্দেশনার বিষয়ে তিনি বলেন, তাদের চিঠি দিয়ে জানানো হয়েছে, আমাদের সিদ্ধান্ত যেগুলো ছিল, সেগুলো যেন প্রয়োগ করে। অর্থাৎ মোবাইল কোর্ট করে। যারা মাস্ক না পরে তাদেরকে জরিমানা করবে। নো মাস্ক-নো সার্ভিস কর্মসূচিকে আরও কঠোরভাবে প্রয়োগ করবে। বিভিন্ন সামাজিক অনুষ্ঠানে গেস্ট কন্ট্রোল করবে।

 

করোনার কারণে বন্ধ থাকা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার বিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, এ বিষয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয় সিদ্ধান্ত নেবে আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনা করে। এটাকে (শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার সিদ্ধান্ত) রিভিউ করতে পারে। সংক্রমণ যদি বেড়ে যায়, তাহলে নিশ্চয় তারা হয়তো এটাকে রিভিউ করবেন। আর যদি করোনা সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে থাকে, তাহলে হয়ত তারা তাদের মত করে সিদ্ধান্ত নেবেন।

 

গত কয়েক দিনে সংক্রমণ ও মৃত্যু যে হারে বাড়ছে তাতে আতঙ্কিত না হলেও উদ্বিগ্ন জানিয়ে জাহিদ মালেক বলেন, সারাদেশে বিভিন্ন হাসপাতালে তিনি এ বিষয়ে কথাও বলেছেন।

 

 

তিনি বলেন, লোকজন স্বাস্থ্যবিধি মানছে না। তারা সিলেট, কক্সবাজারে ঘুরে বেড়াচ্ছে, কোনো মাস্ক পরছে না, সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখছে না। আমরা অতিরিক্ত আত্মবিশ্বাসে ভুগছি যে করোনাভাইরাস নাই। নো মাস্ক নো সার্ভিস কর্মসূচিকে অবহেলা করছি।

 

এ সময় স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের সচিব আবদুল মান্নান, স্বাস্থ্য শিক্ষা ও পরিবার কল্যাণ বিভাগের সচিব আলী নূর, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল বাসার মোহাম্মদ খুরশীদ আলমসহ মন্ত্রণালয় ও অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা সভায় উপস্থিত ছিলেন।

  •  

সর্বশেষ ২৪ খবর