হবিগঞ্জে র‌্যাবের অভিযানে পলাতক আসামি গ্রেপ্তার

প্রকাশিত: ১২:০০ পূর্বাহ্ণ, মার্চ ১৫, ২০২১

হবিগঞ্জে র‌্যাবের অভিযানে পলাতক আসামি গ্রেপ্তার

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি
হবিগঞ্জে আওয়ামী লীগের গেইট পুড়ানো মামলার পলাতক আসামী আব্দুল হান্নান (৪৫) কে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)। দীর্ঘ ১৮ মাস সে গ্রেপ্তারী পরোয়ানা নিয়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছিল। গ্রেপ্তারকৃত আব্দুল হান্নান উপজেলার লস্করপুর ইউনিয়নের আব্দাবকাই গ্রামের মৃত আব্দুল ছফির মিয়ার ছেলে।

 

রোববার সকালে র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)-৯ কোম্পানী কমান্ডার বসুদত্ত চাকমা এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

 

তিনি জানান, গ্রেপ্তারকৃত আব্দুল হান্নান গ্রেপ্তারী পরোয়ারাভুক্ত পলাতক আসামী। সে দীর্ঘদিন ধরে আত্মগোপনে থেকে নানা অপকর্ম করে আসছিলো। তার বিরুদ্ধে বিশেষ ট্রাইব্যুনালে মামলাসহ বিভিন্ন মামলায় একাধিক গ্রেপ্তারী পরোয়ানা আছে। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শনিবার বিকেলে অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

 

এলাকাবাসী জানান, প্রায় ৭ বছর পূর্বে তার বিরুদ্ধে আওয়ামী লীগের গেইট পুড়ানোর অভিযোগে মামলা দেয়া হয়। এরপর ওই দীর্ঘ ১৮ মাস সে গ্রেপ্তারী পরোয়ানা নিয়ে প্রশাসনের চোখ ফাকি দিয়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছিল। অবশেষে র‌্যাব তাকে গ্রেপ্তার করায় সন্তোষ প্রকাশ করেছেন এলাকাবাসী।

 

উল্লেখ্য, ২০১৪ সালের ২৯ নভেম্বর বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সভাপতি ও গণ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা হবিগঞ্জ আগমন উপলক্ষে জেলায় বিভিন্ন স্থানে ব্যানার ও ফেস্টুন টানানো হয়। আগমনের কয়েকদিন পূর্বে উপজেলার লস্করপুর ইউনিয়নের আব্দাবকাই চৌমহনীতে বঙ্গবন্ধু, প্রধানমন্ত্রী ও এমপি আবু জাহিরের ছবি দিয়ে একটি বিশাল তোরন স্থাপন করেন স্থানীয় নেতৃবৃন্দ। ২৭ নভেম্বর রাতে ওই এলাকার আব্দুল মতিনের ছেলে মাহবুবুর রহমান রানা ও আব্দুল হান্নানসহ ৮/১০ জন ব্যক্তি কেরোসিন ঢেলে ওই তোরনে আগুন ধরিয়ে দেয়। এ ঘটনায় ১৪ ডিসেম্বর সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের শ্রম বিষয়ক সম্পাদক আব্দুল জলিল বাদি হয়ে ৮ জনের নাম উল্লেখ করে হবিগঞ্জ সদর মডেল থানায় মামলা দায়ের করেন। যার মামলা নং- জি.আর ৩৫৯/১৪(বিঃট্রা ২২/১৫)। পরে আদালত আব্দুল হান্নানের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারী পরোয়ানা জারি করেন। এর পর দীর্ঘদিন ১৮ মাস আসামী মাহবুবুর রহমান রানার সহযোগিতায় এলাকায় প্রভাব কাটিয়ে প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়াচ্ছিলেন আব্দুল হান্নান।

  •  

সর্বশেষ ২৪ খবর