১৭ বছরেও প্রতিবন্ধী ভাতা জুটেনি আব্দুল কাহারের ভাগ্যে

প্রকাশিত: ২:৫৬ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১৮, ২০১৮

১৭ বছরেও প্রতিবন্ধী ভাতা  জুটেনি আব্দুল কাহারের ভাগ্যে

ডেস্ক প্রতিবেদন
সদর উপজেলার ৩নং খাদিমনগর ইউনিয়নের লাখাউড়া ছালেপুর বাছাটিলা গ্রামের দিনমজুর মোঃ হেলু মিয়ার পুত্র আব্দুল কাহার(১৭)। জন্ম থেকেই বহুমাত্রিক প্রতিবন্ধকতার কারণে আব্দুল কাহার হুইল চেয়ারে বসেই চলাফেরা করতে হয়। তার কোন কর্মক্ষমতা নেই। অন্যের সাহায্য ছাড়া চলাফেরা, খাওয়া-দাওয়া ও প্রাকৃতিক সকল কর্ম করা তার পক্ষে সম্ভব নয়। এই অবস্থায় তার জীবন চলছে।
দরিদ্র বাবা হেলু মিয়া একজন দিনমজুর। আব্দুল কাহেরের জন্মের পরে মা কুলছুমা মারা গেছেন। এমনিতেই প্রতিবন্ধী আব্দুল কাহার। তার মধ্যে মা না থাকায় তার দুর্গতির শেষ নেই। দিন মজুর বাবা কোনমতে সংসার চালান। তার মধ্যে এই প্রতিবন্ধী পুত্রকে নিয়ে তার দুশ্চিন্তার শেষ নেই।
পুত্রের একটি প্রতিবন্ধী ভাতার জন্য তিনি খাদিমনগর ইউনিয়ন পরিষদের ওয়ার্ড সদস্য, চেয়ারম্যান, সদর উপজেলা সমাজসেবা কার্যালয়, শহর সমাজসেবা কার্যালয়, জেলা সমাজসেবা কার্যালয় বিভিন্ন স্থানে গিয়েছেন। আবেদন নিবেদন করেছেন। কিন্তু কোন ফল হয়নি। এখনও আব্দুল কাহারের ভাগ্যে কোন প্রতিবন্ধী ভাতা জুটেনি। এজন্য রাজনীতিবিদ, জনপ্রতিনিধি, সাংবাদিক, সমাজ কল্যাণ মন্ত্রইণালয়ের সংশ্লিষ্টদের কাছে তার প্রতিবন্ধী পুত্রের জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সামাজিক নিরাপত্তা বেষ্টনি কর্মসূচির আওতায় একটি প্রতিবন্ধী ভাতা ও তার চিকিৎসার জন্য সমাজের বিত্তবানদের সহযোগিতা কামনা করেন।

  •  

সর্বশেষ ২৪ খবর